শিরকত ও মুদারাবার ভিত্তিতে ইসালামী ব্যাংকসমূহের রেটিং

শিরকত ও মুদারাবার ভিত্তিতে ইসালামী ব্যাংকসমূহের রেটিং

প্রশ্ন:

আন্তর্জাতিকভাবে ইসলামী ব্যাংকসমূহের জন্য এধরনের নেগরানী কমিটি করা সম্ভবপর কি না; যারা তাদেরকে এব্যাপারে বাধ্য করবে যে উদাহরণস্বরূপ এবছর ১৫%কারবার শিরকত ও মুদারাবার ভিত্তিতে করতে হবে ? যে ব্যাংক এমন করবে না তার রেটিংহ্রাস করে দেয়া হবে.এবং উক্ত রেটিংকে প্রকাশও করে দেয়া হবে?

উত্তর:..

বেশ উত্তম প্রশ্ন। অনেক ভাল কথা। আমি যে রেটিং এজেন্সীর কথা বলেছি এবিষয়টিও তাদের উদ্দেশ্যের মধ্যে রয়েছে। দেখুন! এখনোতো এমন কোন “প্রশাসনিক সংস্থা” সৃষ্টি হয়নি, যার নির্দেশ সকলের জন্য মান্য করা আবশ্যক হবে। তবে একথা সত্য যে, এসব উপায়ে তাদের উপর চাপ প্রয়োগ করা যেতে পারে।

এছাড়া এসব রেটিং এজেন্সীর রেটিং-এ যেসব সীতিমালা রয়েছে তাতে এর প্রতিও লক্ষ্য রাখা হয়েছে। আমি আপনাদেরকে বলে দিচ্ছি যে, মুরাবাহার ব্যবহারকে হ্রাস করে মুশারাকা ও মুদারাবার ব্যবহারকে বৃদ্ধি করার জন্য কিছু দিন যাবৎ আন্তর্জাতিক পরিমশুলে রব উঠেছে।

Spread the love

Leave a Comment