কুরবানীর ইতিহাস ও সূচনা

কুরবানীর ইতিহাস ও সূচনা

ইতিহাস ও জীবনীমূলক কিতাবাদি থেকে জানা যায় যে, পৃথিবীতে এমন কোন জাতি ছিল না, যারা স্বীয় মাযহাব অনুসারে কুরবানী না করত।

কুরবানীর এ ধারা হযরত আদম (আ.) এর সন্তান হাবিল কাবিলের মধ্যে বিবাহ নিয়ে দ্বন্দ্ব দেখা দিলে হযরত আদম আলাইহিস সালাম তাদেরকে এখলাসের সঙ্গে কুরবানী করার নির্দেশ দিয়ে বলেন তোমাদের যার কুরবানি কবুল হবে, তার সঙ্গেই আকলিমাকে বিবাহ দেব।

তখনকার যুগে কুরবানীর কবুল হবার আলামত ছিল, যে কুরবানী কবুল হয় তাকে আসমান থেকে আগুন এসে জ্বালিয়ে দিত। তারপর দুই ভাই কুরবানীর আদেশপ্রাপ্ত হয়ে দুটি দুম্বা কুরবানী করল।

হাবিলের দুম্বাটি ছিল মোটাতাজা ও সুন্দর তাই হাবিলের কুরবানি আল্লাহ কবুল করলেন। আর কাবিলের দুর্বল দুম্বাটি পড়ে রইল, অর্থাৎ কবুল হলোনা। এতে সে অত্যাধিক ক্রদ্ধ হয়ে হাবিলকে হত্যা করে ফেলে।

এ ঘটনা বর্ণনা প্রসঙ্গে আল্লাহ তায়ালা এরশাদ করেন,

”আর (হে রাসুল (স.)) আপনি তাদেরকে পাঠ করে শুনিয়ে দিন আদম (আ) এর পুত্রদ্বয়ের ঘটনাকে যথার্থরূপে। যখন তারা উভয়ে নৈকট্য লাভের জন্য কুরবানী দিয়েছিল।

অতঃপর তাদের একজনের কুরবানী কবুল করা হলো এবং অপরজনের কুরবানী কবুল করা হয়নি। সে বলল আমি তোমাকে হত্যা করবোই। তখন প্রথমজন বলল আল্লাহ তায়ালা মুত্তাকীনদের আমল কবুল করে থাকেন। (সূরা মায়িদা আয়াত ২৭)

বীর্য ঘন করার ঔষধ তৈরির পদ্ধতি

আমাদের ইউটিউব চ্যানেল