বয়স্ক ব্যক্তির আকিকা

শৈশবে যদি কোন ব্যক্তির আকিকা না হয়ে থাকে, তাহলে সাবালক হওয়ার পর তার আকিকা করা যেতে পারে। এবং আকিকার যে বোঝা তার ঘারে ছিল তা নেমে যাবে। কিন্তু এক্ষেত্রে সাত সংখ্যার দিকে খেয়াল রাখা ভালো যেমন সাত বছর ১৪ বছর ২১ বছর কিন্তু এদিকে লক্ষ রাখতে গেলে যদি দেরি হয়ে যায় তাহলে ওদিকে লক্ষ রাখা ছাড়াই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আকিকা করে ফেলবে। (মালাবুদ্দা মিনহু ১৭৪ পৃষ্ঠা)

আকিকার দাওয়াত

আকিকায় রীতিমত দাওয়াত করে খাওয়ানো জরুরী নয়। বরং এ অনুমতি আছে যে, পশু যবেহ করে কিছু প্রতিবেশী বন্ধু-বান্ধব আত্মীয়-স্বজনদেরকে দেবে। আর কিছু গরিব মানুষের মাঝে বন্টন করবে। অবশিষ্ট নিজেদের মধ্যে ব্যবহার করবে।

প্রথাগত দাওয়াতের নামে হাজার হাজার টাকা খরচ করে এগুলো সব নিষ্প্রয়োজন তবে অতিরিক্ত খরচ থেকে বিরত থেকে ওই গোশত রান্না করে সংক্ষিপ্ত আকারে দাওয়াতের মাধ্যমে বন্ধু-বান্ধব আত্মীয়-স্বজনদের কে খাওয়ানো জায়েজ আছে।

যে চারটি কারণে গোসল ফরয হয়

আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

Spread the love

Leave a Comment