বিবাহের পূর্বে কিছু দিক নির্দেশনা

সন্তানাদি যখন প্রাপ্ত বয়সে পৌঁছে, তখন পিতা-মাতার উচিত বিবাহের পূর্বে তাদের থেকে তাদের মতামত জেনে নেওয়া। যাতে বুঝা যায় যে এতে সম্মত আছে কিনা। বিবাহের পূর্বে এ বিষয়টি অবশ্যই খেয়াল করতে হবে যে, যাকে বিবাহ করা হচ্ছে সে নারী বাড়িঘরের কাজ, রান্নাবান্নার কাজ, সেলাই কাজ, ঘরের রক্ষণাবেক্ষণের কাজে কতটুকু যোগ্যতা রাখে।

কেননা বিবাহের পর ঘরের যাবতীয় কাজের দায়িত্ব তাকে নিতে হবে। এবং সে নারী পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করে কিনা, কোরআন তেলাওয়াত জানে কিনা, এ বিষয়ে অবশ্যই লক্ষণীয়। যার নামাজের প্রতি গুরুত্ব নেই সে স্বামীর প্রতি গুরুত্ব দিবে না। যে দ্বীন বোঝেনা যে রাসূলুল্লাহ স. এর আদর্শ কে পছন্দ করে না! সে নারীকে বিবাহ করা থেকে বিরত থাকতে হবে।

জীবনে সুখী হতে চাইলে অবশ্যই একজন দিনটা দেখে বিবাহ করা উচিত।

বীর্য ঘন করার ঔষধ তৈরির পদ্ধতি

আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

শেয়ার করুন