গিটের ব্যথা সারানোর উপায়

দাঁড়িয়ে নামাজ পড়া গিটের ব্যথার উপশম ঘটায়। নামাজের মাধ্যমে শরীরের অংশের চিকিৎসা সম্ভব। অজু করার পর যখন আমরা নামাযের উদ্দেশ্যে দন্ডায়মান হই, তখন প্রথমে আমাদের শরীর ঢিলে হয়ে যায়। কিন্তু নামাজের নিয়ত বাঁধার জন্য যখন আমরা হাত উত্তোলন করি তখন কুদরতীভাবে দেহে এক প্রকার রুহানি শক্তি সৃষ্টি হয়।

এ অবস্থায় মানুষের মধ্যকার আলস্যভাব কেটে যায়। আর হৃদপিণ্ড থেকে রক্তের চাপ মেরুদন্ডের দিকে ধাবিত হয়ে প্রতিটি পেশীতে ছড়িয়ে পড়ে। সকলেই জানেন দৈহিক সুস্থতার জন্য মেরুদন্ড এর ভূমিকা অনন্য। পরিপূর্ণ সুস্থতার ভিত্তি মেরুদন্ডের স্থিতিশীলতার ওপর। নামাজে দন্ডায়মান হওয়া গিট, টাখনু, পায়ের গোছা, হাতের গোছা শক্তিশালী করে। গিটের ব্যথা বিলুপ্ত করে।

তবে শর্ত হলো, দেহ সোজা থাকা ও পায়ের তলায় বক্রতা সৃষ্টি না হওয়া। দাঁড়িয়ে নামাজ পড়লে কোমর হাঁটু এবং প্রতিটি উঠা বসার কারণে শারীরিক ব্যায়াম হয়। পাঁচ ওয়াক্ত নামাজে পাঁচবার এ ধরনের ব্যায়াম হলে গিটে ব্যথা নিমিষেই শেষ হয়ে যাবে ইনশাআল্লাহ।

কারণ নামাজ আমাদের দৈনন্দিন জীবনে শান্তি, নামাজ বেহেশতের চাবি, আল্লাহ তা’য়ালা আমাদের জান্নাত দান করবেন। আবার এই নামাজের ওসিলায় আল্লাহ তা’য়ালা আমাদেরকে সুস্থ রাখবেন। আসুন আমরা পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করি জামাতের সাথে।

বীর্য ঘন করার ঔষধ তৈরির পদ্ধতি

যে চারটি কারণে গোসল ফরয হয়

আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

শেয়ার করুন